• শুক্রবার, ০৬ অগাস্ট ২০২১, ০৯:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
যশোরের অভয়নগরে প্রকৃত সত্য ঘটনা আড়াল করে ইউএনও বরাবর অভিযোগ চলে গেলেন লেখক গবেষক মাওলানা আতাহার উদ্দিন মোল্লা ছাতকে বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ পুত্র, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামালের জন্মদিন পালন চলচ্চিত্র বানিয়ে ছাতকের পবনের বাজিমাত মির্জাগঞ্জে যথাযথ মর্যাদায় শেখ কামালের ৭২ তম জন্মবার্ষিকী পালিত যশোর জেলায় গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পৃথক পৃথক অভিযানে ২ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক- ২ ছাতকে পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেলো নারীর সিরাজগঞ্জ জেলা পুলিশের কল্যাণ সভা ও ক্রাইম কনফারেন্স অনুষ্ঠিত নড়াইলে ফোন করে খাদ্য সহায়তা নিলো ৮০ জন পরিবার। নৌ পুলিশের ওপর হামলা ঘটনায় কাউন্সিলরসহ ৫ আসামি‌কে ১০‌দি‌নে রিমা‌ন্ডের আ‌বেদন আদাল‌তে
ঘোষণা
দৈনিক আমার দিগন্তর পএিকায় প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে আজই যোগাযোগ করুন সম্পাদক দৈনিক আমার দিগন্তর মোবাঃ 01711169167

উম্মুক্ত হচ্ছে সুন্দরবনের পর্যটক কেন্দ্র

/ ১২২ বার
প্রকাশ হয়েছে : মঙ্গলবার, ৩ নভেম্বর, ২০২০

দীর্ঘ সাত মাস বন্ধ থাকার পর ১ নভেম্বর থেকে খুলে দেয়া হচ্ছে সুন্দরবনের পর্যটন কেন্দ্রগুলো।বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ বেলায়েত হোসেন। করোনা ভাইরাসের জন্য স্বাস্থ্যবিধি মানার শর্তে আজ ১ নভেম্বর রোববার থেকে খুলে দেওয়া হচ্ছে সুন্দরবনের সব পর্যটন স্পট। সুন্দরবন খুলে দেওয়ার জন্য এরই মধ্যে বন অধিদপ্তর একটি গেজেটও প্রণয়ন করেছে। ইতি মধ্যে এ সংক্রান্ত বার্তাটি পৌঁছে দেওয়া হয়েছে মোংলাসহ বন বিভাগের সকল অফিসে।
এ খবরে মোংলায় বনের পর্যটন খাতে সংশ্লিষ্ট ব্যাবসায়ীরা সকল লঞ্চ ও ট্যুর বোর্ট নতুন সাঝে সজ্জিত করে প্রস্তুত করেছে, পাশাপাশী ভ্রমন পিপাশুদের আনন্দ দিতে সকল পর্যটন ষ্পটগুলো সাজিয়েছে নতুন সাজে।
বিভাগীয় বন কর্মতর্তা জানান, পর্যটন কেন্দ্র খুলে দেয়ার ব্যাপারে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে নির্দেশনা মোতাবেক বন বিভাগকে অবহিত করেন এবং ট্যুর মালিকদের সাথে আলোচনা করে ১ নভেম্বর সুন্দরবন পর্যটন কেন্দ্র খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। একই সাথে আগত পর্যটকদের স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলাচলেরও অনুরোধ জানান তিনি।
মোংলা ট্যুর ব্যাবসায়ীরা বলেন, দেশের সব পর্যটন কেন্দ্র খুলে দিলেও প্রায় সাত মাস সুন্দরবনের পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ ছিল। খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত আমরা স্বাগত জানাই। দীর্ঘদিন বিশ্ব মহামারীর কারণে বনের পর্যটন কেন্দ্রগুলো বন্ধ থাকায় আর্থিক ক্ষতির মুখে ট্যুর মালিকরা। মানবেতর জীবন যাপন করেছিল এর সাথে সংশ্লিষ্ট কর্মচারীরাও। তাই সুন্দরবনের পর্যটন খুলে দেওয়ার ফলে কর্মচারীরাও বেচে থাকবে এবং ক্ষতি কিছুটা পুষিয়ে নেয়া সম্ভব বলে মনে করেন এই ব্যবসায়ী। ভ্রমনের সময় মাস্ক ছাড়া কোন পর্যটককে লঞ্চ বা ট্যুর বোটে উঠানো হবেনা বলে মনে প্রানে অঙ্গিকার করেন ট্যুর ব্যাবসায়ীরা।


এ জাতীয় আরো খবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!