• শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৪:৪৫ পূর্বাহ্ন
  • Admin Login
শিরোনাম
যশোর সদর উপজেলা রূপদিয়া প্রেসক্লাবে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। যশোর জেলার সদ্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সার্কেল খ “হয় আমি থাকবো” না হয় মাদক সন্ত্রাস চাঁদাবাজ থাকবে। উপজেলা প্রেস ক্লাব এর কমিটি গঠন মনিরুল সভাপতি,রফিকুল সেক্রেটারি যশোরের ফরিদপুর মসজিদের উন্নয়নের জন্য অনুদান দিলেন চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান। মির্জাগঞ্জে ১ কোটি টাকার নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ,৩ ব্যবসায়ীকে জরিমানা যশোর জেলার এসপি মহাদয় সদ্য ৩ অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে ফুলের শুভেচ্ছা জানান। যশোরে হত্যা মামলায় যুবদলের সম্পাদকসহ ৪ জনকে আটক করেছে কোতয়ালি পুলিশ। যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় রেলগেট মডেল জামে মসজিদের ইমাম নিহত হন। যশোর জেলার প্রতিটা থানায় অসাধু ব্যাবসায়ি সিন্ডিকেট কেজি দরে বিক্রয় করছেন তরমুজ।

যশোর ২৫০ শয্যা সদর জেনারেল হাসপাতাল থেকে ১০ জন করোনা রোগী পালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

Avatar
dainik amar digantor / ৪৯ বার
প্রকাশ হয়েছে : সোমবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২১

যশোর ২৫০ শয্যা সদর জেনারেল হাসপাতাল থেকে ১০ জন করোনা রোগী পালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

দৈনিক আমার দিগন্তর।
শিমুল ইসলাম,
যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ

যশোর সদর জেনারেল হাসপাতাল থেকে ভারত ফেরত ১০ জন করোনা রোগী পালিয়ে গেছেন।২৩ এপ্রিল ২০২১ শনিবার সকাল থেকে রবিবার দুপুরের মধ্যে তারা পালিয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। অভিযোগ উঠেছে, যশোর জেনারেল হাসপাতালের নার্স ও কর্মচারীদের অবহেলার কারণে তারা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছেন। যশোর সদর জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগের ব্রাদার তারক চন্দ্র বিশ্বাস, বলেন গত শনিবার ২৩ এপ্রিল সকাল ১০ টা ৫৭ মিনিটে ভারত ফেরত কিছু রোগীকে ভর্তি করা হয়। এরপর রোববারও রোগী আসে। সব মিলিয়ে ২ দিনে ১০ জন করোনা রোগী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের সবাইকে হাসপাতালের ৩য় তলায় করোনা ওয়ার্ডে পাঠানো হয়। হাসপাতালের ভর্তি রেজিস্টার মতে, ভর্তি রোগীরা হলেন, যশোর শহরের বিমান অফিস মোড়ের আবুল কাসেমের স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৫৭), খালধার রোডের বিশ্বনাথের স্ত্রী মালা দত্ত (৫০), সদর উপজেলার পাঁচবাড়িয়া গ্রামের রবিউল ইসলামের স্ত্রী ফাতেমা বেগম (১৯), একই গ্রামের ইকরামের স্ত্রী রোমা (৩০), প্রতাপকাঠি গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে মমিন, রামকান্তপুর গ্রামের গোলাম রব্বানীর স্ত্রী নাসিমা বেগম (৫০), বাঘারপাড়া উপজেলার রায়পুর গ্রামের ফজর আলীর ছেলে শহিদুল ইসলাম (৪৫), ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জের জনৈক মনোতোষের স্ত্রী শেফালি রানী, খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার রামরাইল গ্রামের আহম্মদ সানার ছেলে আমিরুল সানা, ও একই জেলার রূপসা এলাকার শের আলীর ছেলে সোহেল (১৭)। করোনা ওয়ার্ডে দায়িত্বরত সিনিয়র নার্স লাবনী বিশ্বাস সাংবাদিকদের বলেন, কোভিড ১৯ করোনা ভাইরাসে আক্রন্ত হয়ে আসা ভারতসহ ১০ জন ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলেন। কিন্তু আজ সকালের পর থেকে তাদের আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।
ভাইরাস রেজিস্টার বলছেন, কোভিড ১৯ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী যদি কোনো পরিবারে থাকে তার মাধ্যমে প্রথমে তার পরিবার এবং আশপাশের লোকজনও আক্রান্ত হতে পারেন।
এ বিষয়ে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ দিলীপ কুমার রায়, সাংবাদিকেদের বলেন তার জানা মতে হাসপাতাল থেকে ২ জন রোগী পালিয়েছেন। ভারত থেকে কোভিড ১৯ করোনায় আক্রান্ত হয়ে কোনো রোগী হাসপাতালে আনা হলে তা পুলিশ ইসস্কট করে দিয়ে যাবে। একই সাথে তাদের পাসপোর্ট পুলিশ হাসপাতালে জমা করবে। কিন্তু তার কোনোটাই করা হয়নি। কোনো রোগী যাতে পালাতে না পারে সেজন্য বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখার বিষয়ে আমি পুলিশ সুপারের সাথে কথা বলবেন বলে জানান হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ দিলীপ কুমার রায় ।
যশোরের সিভিল সার্জন ডাঃ শেখ আবু শাহীন বলেন, রোগী পালানোর কথা শুনে আমি রোববার সকালে যশোর জেনারেল হাসপাতালে গিয়েছিলাম। হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের সাথে কথা হয়েছে। যে ১০ জন রোগী পালিয়েছে, তাদের নাম ঠিকানা সঠিক থাকলে তাদের খুঁজে বের করা সম্ভব। বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে।
এই বিষয়ে কোতয়ালী থানার ওসি মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ করোনার রোগী পালিয়ে যাওয়ার বিষয়ে তাকে কিছু জানানো হয়নি। অভিযোগ পেলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে বলেন।


এ জাতীয় আরো খবর

error: Content is protected !!
error: Content is protected !!