• শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৪:০৪ পূর্বাহ্ন
  • Admin Login
শিরোনাম
যশোর সদর উপজেলা রূপদিয়া প্রেসক্লাবে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। যশোর জেলার সদ্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সার্কেল খ “হয় আমি থাকবো” না হয় মাদক সন্ত্রাস চাঁদাবাজ থাকবে। উপজেলা প্রেস ক্লাব এর কমিটি গঠন মনিরুল সভাপতি,রফিকুল সেক্রেটারি যশোরের ফরিদপুর মসজিদের উন্নয়নের জন্য অনুদান দিলেন চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান। মির্জাগঞ্জে ১ কোটি টাকার নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ,৩ ব্যবসায়ীকে জরিমানা যশোর জেলার এসপি মহাদয় সদ্য ৩ অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে ফুলের শুভেচ্ছা জানান। যশোরে হত্যা মামলায় যুবদলের সম্পাদকসহ ৪ জনকে আটক করেছে কোতয়ালি পুলিশ। যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় রেলগেট মডেল জামে মসজিদের ইমাম নিহত হন। যশোর জেলার প্রতিটা থানায় অসাধু ব্যাবসায়ি সিন্ডিকেট কেজি দরে বিক্রয় করছেন তরমুজ।

জেসমিন গৃহবধুর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Avatar
dainik amar digantor / ১০১ বার
প্রকাশ হয়েছে : রবিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২১

জেসমিন গৃহবধুর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মোঃ সুমন সংবাদাতা
দৈনিক আমার দিগন্তর

বরগুনা জেলার পাথরঘাটা ২ নং নাচনাপাড়া ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডে মোসাঃ জেসমিন নামে ২৫ বছরের এক গৃহবধুর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
নিহত জেসমিন মোঃআফজাল হোসেনের বড় ছেলে বিল্লাল এর স্ত্রী, মৃত জেসমিন এর বাড়ি মঠবাড়িয়া তার বাবার নাম মোঃ সোহরাব মাতুব্বর ঘটনাটি ঘটে আজ রোববার আনুমানিক সকাল সাড়ে সাতটার দিকে।

উপস্থিত সোলায়মান নামের এক ব্যক্তি আমাদের কে জানান শনিবার রাতে বিল্লাল এর দাদীর নামে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠান হয়, ওই মিলাদে বেল্লাল মিয়ার শ্বশুরবাড়িরও লোকজনকে দাওয়াত করা হয়। কিন্তু তারা বিভিন্ন কারণে না আসতে পারায়, মিলাদ শেষে বেলাল একা তার শ্বশুরবাড়ি মঠবাড়িয়ায় ভাত তরকারি নিয়ে যান কিন্তু রাতে আর বাড়িতে ফেরেননি তার শ্বশুর বাড়িতেই অবস্থান করছিলেন,বাড়িতে তখন তার স্ত্রী জেসমিন ও চার বছরের ছেলে মোঃ সাইমুন ছিলেন।

বেল্লাল অভিযোগ করেছেন যে রাতে জেসমিনের সাথে জেসমিনের বাবার ফোনে কথা কাটাকাটি হয়েছে কোন বিষয় নিয়ে তা তিনি সঠিকভাবে বলতে পারেননি। সকাল হলে বেল্লাল শশুর বাড়ি থেকে তার নিজ বাড়ি নাচনাপাড়া ফিরে আসার পথেই তার স্ত্রী জেসমিন আক্তারের গলায় ফাঁস দিয়ে মারা যাওয়ার খবর শুনতে পান, তখন তিনি দ্রুত বাসায় ছুটে আসেন।

ওখানে উপস্থিত অনেকেই জানিয়েছেন যে বেল্লাল বাড়িতে এসে পৌঁছার আগেই তার স্ত্রী গলায় দড়ি দিয়েছে।বেল্লাল জেসমিনের ৭ বছর হয়েছে বিয়ে হয়েছে তাদের ঘরে চার বছরের একটি ছেলে রয়েছে,বেল্লালের ঘরের পাশেই একটি মুরগির পল্টি ফার্ম রয়েছে, হাসান নামে ১০ বছরের একটি ছেলে কাজ করে ওই পল্টি র্ফামে, মোঃহাসান আমাদের জানিয়েছেন সকাল আটটার দিকে বিল্লাল কে ফোন দেওয়ার জন্য মোবাইল চাইলে ঘরের ভেতর সাড়া দেয় তার ছেলে সাইমুন,তখন ঘরের দরজা বন্ধ ছিল বেল্লালের ছেলে বন্ধ অবস্থায় ঘরের জানলা দিয়ে মোবাইল দেয় হাসানের কাছে। কিছুক্ষণ পরে বেল্লালের ছেলে চেহার দিয়ে ঘরের দরজা খুলে একটু পরে ছেপাড়া পাড়ানোর জন্য হাসান নামে এক হুজুর আসলে। তখন কাজের ছেলে ছেপাড়া খোঁজার জন্য ঘরের ভিতরে ডুকে খোঁজাখুঁজি করতে গিয়ে দেখতে পায়, বেল্লাল স্ত্রী ঘরের দোতলায় মাডামের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে আছে দেখে সে চিৎকার করে ওঠে চিৎকার শুনে বেল্লালের মা পাশের বাড়ি থেকে দ্রুত ছুটে আসে,এসে দেখেন তার পুত্রবধু গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে আছে। তিনি জীবিত আছে মনে করেন রশিখুলে নামিয়ে দেখেন অনেক আগেই মারা গেছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পুলিশ এসে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে গেছে।


এ জাতীয় আরো খবর

error: Content is protected !!
error: Content is protected !!