• শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৩:২৩ পূর্বাহ্ন
  • Admin Login
শিরোনাম
যশোর সদর উপজেলা রূপদিয়া প্রেসক্লাবে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। যশোর জেলার সদ্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সার্কেল খ “হয় আমি থাকবো” না হয় মাদক সন্ত্রাস চাঁদাবাজ থাকবে। উপজেলা প্রেস ক্লাব এর কমিটি গঠন মনিরুল সভাপতি,রফিকুল সেক্রেটারি যশোরের ফরিদপুর মসজিদের উন্নয়নের জন্য অনুদান দিলেন চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান। মির্জাগঞ্জে ১ কোটি টাকার নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ,৩ ব্যবসায়ীকে জরিমানা যশোর জেলার এসপি মহাদয় সদ্য ৩ অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে ফুলের শুভেচ্ছা জানান। যশোরে হত্যা মামলায় যুবদলের সম্পাদকসহ ৪ জনকে আটক করেছে কোতয়ালি পুলিশ। যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় রেলগেট মডেল জামে মসজিদের ইমাম নিহত হন। যশোর জেলার প্রতিটা থানায় অসাধু ব্যাবসায়ি সিন্ডিকেট কেজি দরে বিক্রয় করছেন তরমুজ।

গুরুত্বপূর্ণ সাংবিধানিক বিষয়ে পরামর্শ দিতেন তিনি : প্রধানমন্ত্রী

Avatar
dainik amar digantor / ১৯৬ বার
প্রকাশ হয়েছে : শনিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২০

সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ ও প্রবীণ আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক উল হকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার শোকবার্তায় শেখ হাসিনা বলেন, দেশের গুরুত্বপূর্ণ সাংবিধানিক বিষয়ে ব্যারিস্টার রফিক উল হক নানা পরামর্শ দিতেন। ২০০৭ সালে তৎকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার তাকে মিথ্যা মামলায় বন্দি করে। সেই দুঃসময়ে ব্যারিস্টার রফিক উল হক তাকে কারাগার থেকে মুক্ত করতে আইনি লড়াইয়ে এগিয়ে আসেন। শেখ হাসিনা গভীর কৃতজ্ঞতার সঙ্গে সে কথা স্মরণ করেন।
প্রধানমন্ত্রী মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। প্রসঙ্গত, গত ১৫ অক্টোবর ব্যারিস্টার রফিক উল হককে আদ-দ্বীন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর গত ২০ অক্টোবর রাতে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে ভেন্টিলেশনে দেওয়া হয়।
মন্ত্রীদের শোক : সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ও খ্যাতিমান আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক উল হকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন করেছেন মন্ত্রিসভার সদস্যরা। মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীরা তাদের শোকবাণীতে বলেন, অত্যন্ত সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ও খ্যাতিমান আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক উল হক। গুরুত্বপূর্ণ সাংবিধানিক ও আইনি বিষয় নিয়ে তিনি আদালতকে সবসময় সহযোগিতা করেছেন। সর্বজন শ্রদ্ধেয় এবং সবার কাছে গ্রহণযোগ্য ব্যারিস্টার রফিক উল হক একটি প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছিলেন। আইনের শাসন এবং সুশাসন প্রতিষ্ঠায় তার অবদান অনস্বীকার্য। তার মৃত্যুতে দেশের আইন অঙ্গনে বিশাল শূন্যতার সৃষ্টি হলো। বাংলাদেশের আইন পেশায় তার অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।
ব্যারিস্টার রফিক উল হকের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তাফা কামাল, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রোজউল করিম, ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয় মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন, খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, গৃহায়ন ও গণপুর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান, পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক, মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ড. মো এনামুর রহমান, শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান নওফেল।


এ জাতীয় আরো খবর

error: Content is protected !!
error: Content is protected !!